গাড়ির অগ্রিম কর এখনই সমন্বয় করা শুরু করুন

/, Income Tax/গাড়ির অগ্রিম কর এখনই সমন্বয় করা শুরু করুন

গাড়ির অগ্রিম কর এখনই সমন্বয় করা শুরু করুন

১৫০০ সিসি পর্যন্ত গাড়ির অগ্রিম কর ০১ জুলাই ২০২০ থেকে দশ হাজার টাকা বৃদ্ধি পেয়েছে। অর্থ আইন ২০২০ এর মাধ্যমে প্রাইভেট মটর গাড়ির মালিকদের অগ্রিম আয়কর বৃদ্ধি করা হয়েছে। গাড়ির ধরন ও ইঞ্জিন ক্যাপাসিটি অনুযায়ী অগ্রিম কর নির্ধারন করা হয়েছে।

আগে ১৫০০ সিসি পর্যন্ত গাড়ির জন্য অগ্রিম কর ছিলো পনের হাজার টাকা। ২০২০-২১ আয় বছর থেকে তা বাড়িয়ে করা হয়েছে পচিশ হাজার টাকা। একবারেই দশ হাজার টাকা বৃদ্ধি করা হয়েছে। অন্যান্য ক্ষেত্রেও গাড়ির ধরন ও ইঞ্জিন ক্যাপাসিটি অনুযায়ী অগ্রিম কর বৃদ্ধি করা হয়েছে।

তবে আপনার যদি একক বা যৌথ মালিকানায় একাধিক গাড়ি থাকে তাহলে প্রতিটির ক্ষেত্রেই তখন অগ্রিম করের পরিমান ৫০% বেড়ে যাবে। ধরুন, আপনি প্রথম গাড়ির রেজিস্ট্রেশন নবায়ন করার জন্য ২৫,০০০ টাকা দিয়েছেন। এখন আপনার যদি আরেকটি ১৫০০ সিসি পর্যন্ত গাড়ি থাকে তাহলে দ্বিতীয় গাড়ি নবায়ন করতে আপনাকে ৩৭,৫০০ টাকা দিতে হবে।

তাহলে আপনি বুঝতেই পারছেন এই বছর আপনার অগ্রিম কর বাবদ অনেক টাকা সরকারকে আয় বছর শেষ হওয়ার আগেই দিতে হচ্ছে। গাড়ির রেজিস্ট্রেশন অথবা ফিটনেস নবায়নের তারিখ উত্তীর্ণ হওয়ার আগেই এই অগ্রিম কর প্রদান করতে হয়। যেক্ষেত্রে প্রতি বছর ফিটনেস নবায়ন হয়না সে ক্ষেত্রে আয় বছর শেষ হওয়ার আগেই এই অগ্রিম কর পরিশোধ করতে হয়।

এখন গাড়ির জন্য যে আপনি অগ্রিম কর পরিশোধ করছেন তা নিয়মিত উৎসের আয়ের উপর যে কর এসেছে তার বিপরীতে সমন্বয় করতে পারবেন। আপনি যদি চাকরি করেন তাহলে আগেই অনুমান করুন সারা বছর ধরে আপনার বেতন খাত থেকে কতো করযোগ্য আয় হতে পারে। এবং সেই করযোগ্য আয়ের উপর এবার আপনি কর ধাপ ব্যবহার করে আপনার করদায় বের করুন।

এবার আপনি যে প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন সেখানে অ্যাকাউন্টস বা এইচআর বিভাগে জানিয়ে দিন আপনার গাড়ি রয়েছে যার উপর আপনি অগ্রিম কর দিয়ে থাকেন। এবং তারা যেন তা বিবেচনায় নিয়ে প্রতি মাসে উৎসে কর কর্তন করেন। তাহলে প্রতি মাসে আপনার করের পরিমান কমবে।

আর যদি দেখা যায় আপনার করদায় পচিশ হাজার টাকার কম তাহলে বলুন আপনার মাসিক বেতন থেকে উৎসে কর কর্তন না করে সম্পূর্ণ বেতন আপনার ব্যাংকে ট্রান্সফার করে দিতে। কারন, কোন আয় বছরে নিয়মিত উৎসের আয়ের উপর প্রযোজ্য করদায় যদি অগ্রিম কর অপেক্ষা কম হয় তাহলে উক্ত অগ্রিম করই হবে আপনার করদায়। এবং উক্ত অগ্রিম কর ফেরতযোগ্য হবে না বা আগের বছরের কর দাবির সাথে সমন্বয়ও করা যাবে না।

অর্থাৎ দেখা গেলো আপনার করদায় এসেছে ১৫,০০০ হাজার টাকা। কিন্তু আপনি গাড়ির জন্য অগ্রিম কর দিয়েছেন ২৫,০০০ টাকা। আপনি যেহেতু আগেই আপনার প্রতিষ্ঠানে জানিয়ে দিয়েছেন তাই তারা আর আপনার মাসিক বেতন থেকে উৎসে কোন কর কর্তন করেনি। তাই আপনি ১৫,০০০ টাকা সমন্বয় করতে পেরেছেন। আর বাকি যে ১০,০০০ টাকা সমন্বয় করতে পারলেন না তা আপনি ফেরত পাবেন না। অর্থাৎ ২৫,০০০ টাকাই আপনার করদায়।

তাই আপনি আগে থেকেই আপনার প্রতিষ্টানে জানিয়ে দিন আপনার গাড়ি রয়েছে এবং আপনি তার জন্য অগ্রিম কর দিয়ে থাকেন। তা যেন তারা বিবেচায় নিয়ে এখন থেকেই প্রতি মাসে সমন্বয় করেন।

জসীম উদ্দিন রাসেল

আয়কর পরামর্শক এবং প্রশিক্ষক

By | 2021-03-07T08:44:12+00:00 March 6th, 2021|Car Advance Tax, Income Tax|0 Comments

About the Author:

Leave A Comment

*

Shares
error: Content is protected !!